সোমবার, ১৭ মে ২০২১, ০৪:১০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
দুর্ভোগকে সঙ্গী করে বরিশাল থেকে রাজধানীমুখী মানুষের ভিড় ঈদ শেষে কর্মস্থলে ফেরা, পথে পথে ভোগান্তি শারিরীক প্রতিবন্ধী সুমাইয়া খাতুন সুমিকে তার পিতা-মাতার কাছে ফিরিয়ে দিলেন চুয়াডাঙ্গার পুলিশ সুপার মেহেরপুরের ইরা একজন জনপ্রিয় নিয়মিত ফুড ব্লগ নির্মাতা লোহাগড়ায় র‌্যাব-৬ এর অভিযানে ইয়াবাসহ ১ জন আটক শিবগঞ্জে ফ্রী ফায়ার গেম খেলার জন্য স্মার্টফোন কিনে না দেওয়ায় কিশোরের আত্মহত্যা ভিক্ষুকের টাকা উদ্ধার করে দিলো বেনাপোল পৌর্ট থানা পুলিশ দর্শনায় পরিচয় গোপন করে প্রেমিকাকে কৌশলে হোটেলে নিয়ে ধর্ষণ চেষ্টা:প্রেমিক আটক ইকবাল আহম্মেদ এর হুইল চেয়ারকে ব্যবহার উপযোগী করে দিলেন-চুয়াডাঙ্গার পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম দর্শনা থানা পুলিশের বিশেষ অভিযানে জুয়ার সরঞ্জাম ও নগদ টাকা সহ ৮ জোয়াড়ি আটক

বিয়ের আশ্বাস দিয়ে মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণ-গর্ভপাত

স্টাফ রিপোর্টার / ১০৩ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : সোমবার, ১৭ মে ২০২১, ০৪:১০ পূর্বাহ্ন

বরিশালের বানারীপাড়ায় বিয়ের আশ্বাস দিয়ে এক মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণ ও কোল্ড ড্রিংসের সঙ্গে ওষুধ খাইয়ে গর্ভপাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় দায়ের করা মামলার একমাত্র আসামি প্রেমিক হাসিবুল হাওলাদারকে (১৯) গ্রেফতার করে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার রাতে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও লবণসাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের আইসি মো. জুবাইর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে উপজেলার জিরাকাঠী এলাকা থেকে হাসিবুল হাওলাদারকে গ্রেফতার করেন। বুধবার সকালে তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়। একই সঙ্গে ওই ছাত্রীকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করা হয়েছে বলে লবণসাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের আইসি মো. জুবাইর যুগান্তরকে জানান।

এ ব্যাপারে মামলা ও ভিকটিমের পরিবারসহ একাধিক সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার জিরাকাঠী এলাকার মো. হাসিবুল হাওলাদার (১৯) দীর্ঘ দিন ধরে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে ওই মাদ্রাসাছাত্রীকে (১৬) তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে আসছিল। ফলে ভিকটিম ৪ সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে।

এ খবর জানতে পেরে সম্প্রতি হাসিবুল তার প্রেমিকাকে কোল্ড ড্রিংকসের সঙ্গে গর্ভপাতের ওষুধ খাইয়ে পেটের বাচ্চা নষ্ট করে দেয়।

এ সময় রক্তক্ষরণ হলেও লোকলজ্জার ভয়ে মুখ খুলতে পারেনি ওই ছাত্রী ও তার পরিবার। পরে ১১ এপ্রিল রাত ১১টার দিকে প্রেমিক হাসিবুল ওই ছাত্রীর মোবাইলে ফোন করে তার ঘরের দরজা খুলতে বলে। দরজা খুলে দেয়ার সঙ্গে সঙ্গে হাসিবুল তার বেডরুমে ঢুকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে ওই ছাত্রীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

পরে ওই ছাত্রীর চিৎকার শুনে তার মা ঘটনাস্থলে গেলে হাসিবুল সেখান থেকে দ্রুত সটকে পড়ে। পরে বিয়ে করার কথা বললে হাসিবুল তা অস্বীকার করে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার ওই ছাত্রী বাদী হয়ে বানারীপাড়া থানায় একটি মামলা দায়ের করে।

বানারীপাড়া থানার ওসি মো. হেলাল উদ্দিন মামলাটি তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য লবণসাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের আইসি মো. জুবাইরকে নির্দেশ দেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর