রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৯:০৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
কুষ্টিয়ায় জাতীয় পরিসংখ্যান দিবস পালিত জীবননগর থানা পুলিশের মাদক বিরোধী অভিযানে ১ কেজি গাঁজাসহ গ্রেফতার ২ মাদক, সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজ চক্র নির্মূলে চলছে সাঁড়াশি অভিযান সিরাজগঞ্জ থানা কর্তৃক অভিযানে ৯ কেজি গাঁজা উদ্ধার, ১টি মোটরসাইকেল ও ২টি মোবাইল ফোন জব্দ সহ ২জন আসামি গ্রেপ্তার সিরাজদিখান ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলায় ক্রিকেট পোকা অনলাইন ক্লাব চ্যাম্পিয়ান পেঁপে চাষে চাষে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে কৃষকের সোনালি স্বপ্ন করোনা মহামারিতে হাঁস পালনে ভাগ্য ফিরেছে বেকারি ব্যবসায়ী অনোকের ‘মুক্তিযুদ্ধ ও আমাদের নাগরিক সভ্যতা আজ কোথায়?’ আলমডাঙ্গা মোহনা বন্ধু সমিতির আয়োজনে বার্ষিক সাধারণ সভা জাকজমকের সহিত অনুষ্ঠিত শিশু নির্যাতনে চিকিৎসক রবিন ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা

উদ্ভাবনে উৎসাহ দিতে ‘বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট’

Reporter Name / ১১৬ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৯:০৩ পূর্বাহ্ন

স্টাফ রিপোর্টারঃতরুণ উদ্যোক্তা ও উদ্ভাবকদের উদ্ভাবনী ধারণাকে উৎসাহিত করতে প্রথমবারের মতো শুরু হয়েছে ‘বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট-২০২০’। এই আয়োজনের মাধ্যমে ৩৬টি স্টার্টআপকে ১০ লাখ টাকা করে এবং এদের মধ্যে সেরা স্টার্টআপকে ১ লাখ মার্কিন ডলার অনুদান প্রদান করা হবে। ঢাকার আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারে বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়। সংবাদ সম্মেলনে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কখনোই জীবনে ছোট কিছু চিন্তা করেননি, ছোট কোনো স্বপ্ন দেখেননি। তিনি দূরদৃষ্টি দিয়ে সমস্যার সমাধান, অধিকার আদায়ের জন্য বড় বড় পদক্ষেপ নিয়েছেন। তিনি বলেন, যদি তরুণদের আমরা অনুপ্রাণিত করতে চাই, বঙ্গবন্ধুর জীবনের সংগ্রাম ও রাজনৈতিক দর্শন তাদের সামনে তুলে ধরা গেলে তারা কখনোই জীবন সংগ্রামে পরাজিত হবে না। সেই উদ্দেশ্যে আমরা উদ্যোক্তা ও উদ্ভাবকদের অনুপ্রাণিত করতে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছি। শুরুতে মুজিববর্ষের জন্য এই প্রতিযোগিতা আয়োজনের চিন্তা থাকলেও পরে এটি প্রতিবছর আয়োজনের সিদ্ধান্ত হয় বলে জানান তিনি। জাতীয় প্লাটফর্মের বাইরে গিয়ে ‘বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট’কে আন্তর্জাতিক একটি প্লাটফর্ম হিসেবে তৈরির আশাবাদ ব্যক্ত করেন প্রতিমন্ত্রী। নিবন্ধনপ্রাপ্ত আবেদন থেকে প্রাথমিকভাবে ২০০ স্টার্টআপকে বাছাই করা হবে। সেখান থেকে ৬৫টি দেশীয় স্টার্টআপকে নিয়ে বুটক্যাম্প এবং টিভি রিয়েলিটি শো এর আয়োজন করা হবে। সেখান থেকে সর্বশেষ ২৬টি স্টার্টআপকে ১০ লাখ টাকা করে অনুদানের জন্য নির্বাচিত করা হবে। অন্যদিকে আন্তর্জাতিক রোড শোর মাধ্যমে চূড়ান্তভাবে বাছাই করা ১০টি স্টার্টআপকে অনুদান দেয়া হবে। আগামী মার্চে চূড়ান্ত বিজয়ীদের পুরস্কার প্রদানের পরিকল্পনা রয়েছে আয়োজকদের। সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক পার্থপ্রতিম দেব, আইসিটি বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব এন এম জিয়াউল আলম, অতিরিক্ত সচিব সৈয়দ মজিবুল হক বক্তব্য দেন। করোনা পরিস্থিতির কারণে আগামী মার্চ ২০২১-এ যথাযথ সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে ‘বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট- ২০২০’ এর সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান আয়োজনের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় উপস্থিত থাকবেন বলে আশা করা হচ্ছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর