সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১০:২৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
আসন্ন আলমডাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি পৌর মেয়র হাসান কাদির গনুর পথসভা ও নির্বাচনী গণসংযোগ অব‍্যাহত আলমডাঙ্গায় আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের বর্ষ পূর্তি উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত চুয়াডাঙ্গায় ইট তৈরীর উপকরণের দাম বৃদ্ধি পেলেও বৃদ্ধি পায়নি ইটের দাম দেশে ফিরলেন ভারতে পাচার হওয়া চার বাংলাদেশি তরুণী সাতক্ষীরার দেবনগরে পল্লী সমাজের সম্প্রীতির মেলা গলাচিপায় ইপিজেড’র দাবিতে ১০ হাজার লোকের মানববন্ধন বাগেরহাট তিন মাসের শিশু হত্যায় ৩ জনের যাবজ্জীবন মেডিকেল শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা, গ্রেফতার ৪ পুলিশ সুপারের কাছে অসহায় মানুষের জন্য পাচঁশত কম্বল দিলেন ড. যশোদা জীবন দেবনাথ কিশোরগঞ্জে সিএনজির আগুনে পুড়ে মা-মেয়ে আহত

দাখিল পরীক্ষার্থীকে ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত দুই শিক্ষক আটক

Reporter Name / ১০৫ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১০:২৪ পূর্বাহ্ন

জাগো দেশ,প্রতিবেদনঃ মণিরামপুরে দাখিল পরীক্ষার্থীকে ধর্ষণের ঘটনায় মামলার প্রধান আসামি মাদরাসা শিক্ষক তরিকুল ইসলাম (২৮) ও ঘটনায় জড়িত অপর শিক্ষক নজরুল ইসলাম (৫২) কে আটক করেছে পুলিশ। আটক তরিকুল উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা খানপুর গ্রামের মোন্তাজের ছেলে এবং শিক্ষক নজরুল ইসলাম একই উপজেলার ঝাঁপা গ্রামের মৃত আব্দুল মজিদের ছেলে আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় প্রেসব্রিফিং-এ আটকের তথ্য নিশ্চিত করে যশোরের সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার রাকিব হাসান সাংবাদিকদের জানান, ঘটনার পর থেকে দুই আসামি পলাতক ছিল। তাদের ধরতে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারসহ পুলিশ ব্যাপক তৎপরতা চালায়। এরই ধারবাহিকতায় ধর্ষণের সাথে জড়িত মাদরাসা শিক্ষক নজরুল ইসলামকে খুলনা জেলার ডুমুরিয়া বাজার থেকে সোমবার বিকেলে আটক করা হয়। প্রধান আসামি তরিকুলকে আটকের স্বার্থে কৌশলগত কারণে নজরুলকে আটকের বিষয়টি প্রকাশ করা হয়নি।

আজ মঙ্গলবার বিকেলে থানার এসআই জহির রায়হান ও আকিকুর রহমান গোপন সংবাদের ভিত্তিতে যশোর সদর উপজেলার চাঁচড়া এলাকা থেকে তরিকুল ইসলামকে আটক করা হয়। প্রসঙ্গত. ৩০ সেপ্টেম্বর কোচিং শেষে বাড়ি ফেরার পথে ওই শিক্ষার্থীকে কৌশলে আটকে রাখে দুই শিক্ষক তরিকুল ইসলাম ও নজরুল ইসলাম। এক পর্যায় শিক্ষার্থী ধর্ষণের শিকার হলে রক্তাত ও অচেতন অবস্থায় মাদরাসার বাথরুমের পাশে বাঁশবাগান থেকে উদ্ধার করে বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করে স্বজনরা। ৩ অক্টোবর বাড়ি ফিরে আসলে ঘটনা প্রকাশ করলে তোড়পাড় সৃষ্টি হয়। এক পর্যায় শিক্ষার্থীর স্বজনসহ বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসি মাদরাসা ঘেরাও করে ঘটনার সাথে জড়িত নজরুল ইসলামকে মারধর করে আটকে রাখে। পরে কৌশলে সে পালিয়ে যায়। ওই সময় পরীক্ষার্থীর পিতা ২ শিক্ষকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেন। এদিকে গত ৬ অক্টোবর শনিবার ওই শিক্ষার্থীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্নসহ আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর