রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৭:২০ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
বন্যপ্রাণী রক্ষায় বঙ্গবন্ধু পদক পাচ্ছেন ৩ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা ব্যয় নির্ধারণ করবে সরকার পদ্মার চরে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ৪ জন গুলিবিদ্ধসহ আহত ১০ ছাগলে কাঁঠাল খাওয়ায় ফালা দিয়ে চাচাকে খুন মাদকাসক্ত মেয়ের কাঁচির আঘাতে প্রাণ গেল মায়ের ‘জীবনের শেষ ভোট দিয়ে গেলাম’, ৯৫ বছরের বৃদ্ধা কেন্দ্রে ২ কাউন্সিলরপ্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষ, যুবক নিহত ফতুল্লায় ৪ শ্রমিক হত্যায় ২ আসামির ফাঁসি, ৯ জনের যাবজ্জীবন দেশে করোনাভাইরাসে আরও ৮ জনের মৃত্যু শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে মধ্যম আয়ের দেশে রুপান্তরিত হয়েছে ….নওগাঁয় তথ্যমন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ

জীবননগর উপজেলার উথলী ও পেয়ারাতলা এলাকায় ভ্রাম্যমাণ অভিযান : জরিমানা আদায়

Reporter Name / ৫৮ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৭:২০ অপরাহ্ন

হাফিজুর রহমান স্টাফ রিপোর্টার : জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের শ্রদ্ধেয় মহাপরিচালক মহোদয়ের সার্বিক নির্দেশনা এবং জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার মহোদয়, চুয়াডাঙ্গা এর তত্ত্বাবধানে চুয়াডাঙ্গা জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক জনাব সজল আহম্মেদ এর নেতৃত্বে মঙ্গলবার ১৩ অক্টোবর দুপুর ২ টা থেকে বিকাল সাড়ে ৪ টা পর্যন্ত জীবননগর উপজেলার উথলী ও পেয়ারাতলা এলাকায় ভ্রাম্যমাণ অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। এ সময় ভ্রাম্যমাণঅভিযানে উথলী মোড়ে মেসার্স লিজা স্টোরে পূর্বে সতর্ক করা স্বত্তেও মেয়াদ উত্তীর্ণ ও মেয়াদ মুল্য বিহীন পণ্য বিক্রয়ের অপরাধে প্রতিষ্ঠানটিকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন-২০০৯ এর ৩৭, ৫১ ধারায় ৪,০০০/- টাকা জরিমানা করা হয়।

পরবর্তীতে পেয়ারাতলা মোড়ে অভিযানে মেসার্স জাফর স্টোরকে মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য ও মেয়াদ মুল্য বিহীন পণ্য বিক্রয় এবং পণ্যের মুল্যতালিকা প্রদর্শন না করার অপরাধে প্রতিষ্ঠানটিকে ৩৭, ৩৮ ধারায় ২,০০০/- টাকা এবং মেসার্স মেহেদী ফুডস বেকারীকে খাবারে অগ্রীম উৎপাদন তারিখ লেখা, যথাযথ মোড়কীকরণ বিধি লংঘন করা ও অস্বাস্থ্যকরভাবে খাদ্য দ্রব্য তৈরির অপরাধে ৩৭, ৪৩ ধারায় ১৫,০০০/- টাকাসহ ০৩টি প্রতিষ্ঠানকে মোট ২১,০০০/- টাকা জরিমানা করা হয়।

এছাড়াও আরও কয়েকটি প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করা হয় এবং সবাইকে মুল্যতালিকা প্রদর্শন ও ক্রয় রশিদ সংরক্ষণ করতে বলা হয় এবং উপস্থিত জনসাধারণকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন-২০০৯ সম্পর্কে অবহিত করা হয়। সহযোগিতায় ছিলেন জীবননগর উপজেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর জনাব মোঃ আনিসুর রহমান। নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশের একটি টিম। জনস্বার্থে এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে জানান চুয়াডাঙ্গা জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক জনাব সজল আহম্মেদ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর