রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০৮:১০ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
দর্শনা থানা পুলিশের অভিযানে কুড়ুলগাছির ৪ ভুয়া পুলিশ আটক দামুড়হুদার হাউলি ইউনিয়নে ২০২০-২০২১ অর্থ বছরের অতি দরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচি কাজের শুভ উদ্বোধনে আলী মুনছুর বাবু হিলি সীমান্তে মিষ্টি দিয়ে বিজিবি- বিএসএফের শুভেচ্ছা আরও ২৩ প্রাণহানি, নতুন শনাক্ত ১৩০৮ শুভ জন্মদিন প্রাণপ্রিয় বড় ভাইয়া হরিণাকুণ্ডুতে ২০০ গ্রাম গাঁজাসহ মাদক বিক্রেতা শাকিল গ্রেফতার শুভপুর ইউনিয়নে জয়পুর গ্রামে হত্যার ঘটনার এজাহারনামীয় ০১ জন আসামী গ্রেফতার নরসিংদীর ঘোড়াশালে বিভিন্ন পূর্জা মন্ডপ পরির্দশন করেন মেয়র পদপ্রার্থী তুষার দামুড়হুদা বিষ্ণুপুরে ২০২০-২০২১ অর্থ বছরের অতি দরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচি কাজের শুভ উদ্বোধন কুড়ুলগাছির ফুলবাড়ি বিজিবির মাদকবিরোধী অভিযানে ফেনসিডিল ও ইয়াবা উদ্ধার

স্ত্রীর অধিকার পেতে প্রেমিকের বাড়িতে শিক্ষিকার অনশন

Reporter Name / ৯৪ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০৮:১০ অপরাহ্ন

রংপুর প্রতিবেদকঃ রংপুরের তারাগঞ্জে বিয়ের দাবিতে তিনদিন ধরে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন করছেন এক স্কুল শিক্ষিকা। নিজ বাড়িতে প্রেমিকার অনশনের খবরে গা-ঢাকা দিয়েছেন প্রেমিক। স্থানীয় ইউপি সদস্য ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, তারাগঞ্জ উপজেলার সয়ার ইউপির শ্যামগঞ্জ গ্রামের শিক্ষক অনন্ত কুমার রায়ের ছেলে নন্দরাজ রায়ের সঙ্গে কয়েক বছর আগে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে পার্শ্ববর্তী নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার কেল্লাবাড়ি বাবুপাড়া গ্রামের এক শিক্ষিকার। প্রেমের সম্পর্কের স্বীকৃতি দিতে তারা এক বছর আগে কোর্টে এফিডেফিটের মাধ্যমে বিয়ে করেন। হঠাৎ ৩ মাস ধরে প্রেমিক নন্দরাজ প্রেমিকার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন। যোগাযোগের চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হলে শুক্রবার সন্ধ্যায় তিনি নন্দরাজের ঘরে গিয়ে উঠেন। নিজ বাড়িতে প্রেমিকা এসে অনশন করছেন খবর পেয়ে নন্দ গা-ঢাকা দেন। নন্দরাজের বাবা অনন্ত রায় বলেন, ছেলে যা করবে তা মেনে নিতে হবে এটি সম্ভব নয়। প্রেমিকা বলেন, আমরা কোর্টের মাধ্যমে বিয়ে করেছি। আমি স্ত্রীর অধিকার প্রতিষ্ঠা করে এই বাড়িতেই থাকবো। এ ব্যাপারে সয়ার ইউপির ১ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য দেবেন চন্দ্র রায় বলেন, লোকমুখে শুনেছি এক শিক্ষিকা আমাদের এলাকার এক শিক্ষকের ছেলের সঙ্গে সম্পর্ক করেছিলেন। ওই শিক্ষিকা বিয়ের দাবিতে ছেলের বাড়িতে অবস্থান করছে। যেহেতু ছেলের বাবা শিক্ষক মানুষ, এছাড়া কেউ এ ব্যাপারে অভিযোগও দেয়নি তাই আমরা কোনো প্রকার হস্তক্ষেপ করিনি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর