মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ১০:১৬ পূর্বাহ্ন

ছাত্রীকে হত্যার পর ইট-পাথর বেঁধে ডুবিয়ে দিলো খালে

Reporter Name / ১২৭ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ১০:১৬ পূর্বাহ্ন

বরিশাল প্রতিবেদকঃ বরিশালের বানারীপাড়ায় এক মাদরাসাছাত্রীকে হত্যার পর শরীরে ইট-পাথর ও বালতি বেঁধে খালে ডুবিয়ে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। বুধবার বিকেলে ওই ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা। এ ঘটনায় একই পরিবারের চারজনকে আটক করেছে পুলিশ। নিহত আয়শা আক্তার উপজেলার সৈয়দকাঠি ইউপির আউয়ার গ্রামের দুলাল লাহারীর মেয়ে। সে স্থানীয় আউয়ার ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসার সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। স্থানীয়রা জানায়, মঙ্গলবার সকালে বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয় আয়শা। এরপর বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করেন স্বজনরা। এছাড়া তার সন্ধানে মাইকিং ও ফেসবুকে বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়। কিন্তু দিনভর বিভিন্নভাবে চেষ্টা করেও আয়শার সন্ধান পাননি তারা। বুধবার সকালে পার্শ্ববর্তী বাড়ির সিদ্দিক মীরার ঘরের পাশে আয়শার একটি জুতা পান স্বজনরা। ওই জুতার সূত্র ধরেই ইউপি সদস্য জাহিদুল ইসলাম কাজলসহ অন্যরা সিদ্দিক, তার স্ত্রী হনুফা বেগম, ছেলে সাব্বির ও সাঈদকে ইউনিয়ন পরিষদে ডেকে নেন। পরে জিজ্ঞাসাবাদে আয়শাকে হত্যার পর শরীরে ইট-পাথর ও বালতি বেঁধে বাড়ি সংলগ্ন খালে ডুবিয়ে দিয়েছে বলে স্বীকার করেন তারা। খবর পেয়ে পুলিশ তাদের আটক করে। বানারীপাড়ার থানার ওসি শিশির কুমার পাল জানান, আটক চারজনের স্বীকারোক্তিতে বানারীপাড়া ও বরিশাল ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দলকে খবর দেয়া হয়। পরে ডুবুরিরা খালে দিনভর তল্লাশি চালিয়ে বিকেলে আয়শার মরদেহ উদ্ধার করে


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর