শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০, ০৪:৪৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
দামুড়হুদা থানা পুলিশের অভিযানে সিআর সাজাপ্রাপ্ত পলাতক ২ জন আটক দেশে একদিনে আরো ৩০ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৬৮৬ শারীরিক-মানসিক নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে স্বামীকে হত্যা করেন বিউটি লক্ষ্মীপুরে অটোরিকশা চোর চক্রের তিনজন আটক মায়ের কবরে শায়িত হলেন সাহারা খাতুন পাইকগাছায় পূজা উদযাপন পরিষদের বৃক্ষ রোপন কর্মসুচি ও আলোচনা সভা অনু‌ষ্ঠিত ফকিরহাটে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে নসিমন চালক নিহত দামুড়হুদার কুড়ুলগাছি গ্রাম থেকে দশম শ্রেণির দুই স্কুল ছাত্র গ্রেপ্তার, গ্রেপ্তারের পর বেরিয়ে এলো বাপ্পী ও শামীমের নানা কু-কীর্তি সজীব ওয়াজেদ জয় পরিষদ চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত জীবননগর থানা পুলিশের মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযানে ৪২ বোতল ফেন্সিডিলসহ দুই যুবক আটক

ইউএনও পরিচয়ে পরী সুন্দরীর ভয়ংকর প্রতারণা

Reporter Name / ৭৩ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০, ০৪:৪৪ অপরাহ্ন

রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধিঃ শুধু নামেই নয়, সুন্দর চেহারার অধিকারীও পরী বেগম। কখনো ইউএনও কখনো মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, আবার কখনো সমাজসেবা কর্মকর্তা সেজে সুন্দর হাসি ও তীক্ষ্ণ চাহনি দিয়ে পুরুষদের কাবু করে তাদের সর্বস্ব হাতিয়ে নিচ্ছেন। আবার কখনো স্বপ্নমাখা গল্পের ফাঁদ পেতে গ্রামের দরিদ্র অসহায় নারী ও কিশোরীদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ নিয়ে কেটে পড়ছেন। এছাড়া চাকরিজীবি, জনপ্রতিনিধি, রাজনীতিবিদসহ সবাইকে ফেসবুকে চ্যাটিং বা মোবাইল ফোনে কথা বলে ট্রাপে ফেলেও প্রতারণার মাধ্যমে হাতিয়ে
নিচ্ছেন লাখ লাখ টাকা। ঘটনা এখানেই শেষ নয়, ফোনে কথা বলে রুমমেট করার
ফাঁদে ফেলে শিকার ধরতো ওই পরী সুন্দরী। তার মন ভোলানো কথায় বহু মানুষ পা দিতেন ভয়াবহ ফাঁদে। কিন্তু এ ফাঁদ যে কত ভয়ংকর তা যখন টের পেতো তখন কিছুই করার আর থাকতো না ভুক্তভোগীদের। তার ওইসব অপকর্মকে সেল্টার দেয়ার জন্য রয়েছে একটি সিন্ডিকেট। লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জের এই পরী সুন্দরীর ভয়ংকর প্রতারণার খবর এখন টক অব দ্যা টাউন। পরীর এমন প্রতারণার বিচারের দাবিতে ভুক্তভোগী শিরীন আক্তার নামে এক গৃহবধূ একাধিক নারীর পক্ষে বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার রামগঞ্জের ইউএনও মুনতাসির জাহানের কাছে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, পরী বেগম (প্রকাশ ফাতেমা আক্তার পরী) রামগঞ্জ পৌরসভার নন্দনপুর গ্রামের ইম্মত আলী ভূঁইয়া বাড়ির আলমগীর হোসেনের স্ত্রী। স্বামী রাজমিস্ত্রি আলমগীর বেশ কয়েকবার স্ত্রীর বেপরোয়া অনৈতিক কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদ করে দফায় দফায় হেনস্তা হয়েছেন। এর বাইরেও পরী বেগম সম্প্রতি রামগঞ্জ উপজেলার চন্ডীপুর ইউপির বেচারাম বাড়ির শিরীন আক্তারসহ ২৩ জন দরিদ্র অসহায় নারীর
কাছ থেকে ইউএনও’র পরিচয় দিয়ে বয়স্কভাতা, বিধবাভাতা, প্রতিবন্ধীভাতা, মাতৃত্বভাতা ও নতুন ঘর করে দেয়ার নাম করে সহজ সরল মহিলাদের কাছ
থেকে এক লাখ ২০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। এছাড়া ওই পরী বেশ কয়েকদিন আগে রামগঞ্জ পৌরসভার সাতারপাড়া গ্রামের মিয়া বাড়ির জেসমিন আক্তার কাছ থেকে ৩ হাজার, সুফিয়া বেগমের কাছ থেকে ৮ হাজার, একই গ্রামের মিয়ার বাড়ির সোহাগী বেগমের কাছ থেকে ১০ হাজার, নাসরিন আক্তারের কাছ থেকে ৩০ হাজার, সুমা আক্তারের কাছ থেকে ৭ হাজার, আকলিমা আক্তারের কাছ থেকে ৭ হাজার, বাচ্চু মিয়ার কাছ থেকে ৬ হাজারসহ অসংখ্য নারী-পুরুষের কাছ থেকে বয়স্কভাতা, বিধবাভাতা, প্রতিবন্ধীভাতা, মাতৃত্বভাতা ও নতুন ঘর করে দেয়ার নাম করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। এ ব্যাপারে পরী বেগম বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনিত সব অভিযোগ মিথ্যা। শিরিন বেগম ইউএনও অফিসে যে অভিযোগ করেছে তাও পুরোপুরি সত্য নয়। শিরিন আমাকে মাত্র ২ হাজার ৫০০ টাকা দিয়েছে। বাকি টাকা সে আত্মসাৎ করে আমাকে দোষারোপ করছে। উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মো. আনোয়ার হোসেন
বলেন,পরীর বিরুদ্ধে প্রাথমিক তদন্তে এ পর্যন্ত অর্ধশতাধিক নারী-পুরুষের কাছ থেকে প্রতারণা করে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে।
খুব শিগগির বাকি তদন্ত শেষ করে ইউএনও’র কাছে প্রতিবেদন পেশ করা হবে। পরী বেগম নামে কোনো নারীকে আমরা চিনি না যদি আমাদের অফিসের নাম
বিক্রি করে কোনো অনৈতিক কর্মকাণ্ড করে থাকে তাহলে অভিযোগের ভিত্তিতে তার বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ ব্যাপারে ইউএনও মুনতাসির জাহান জানান, ফাতেমা আক্তার পরীর বিরুদ্ধে অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তের জন্য সমাজসেবা কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেনকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তদন্ত শেষে পরীর বিরুদ্ধে বিধি মোতাবেক কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। এছাড়া তার প্রতারণার বিষয়ে আরো বিস্তারিত খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর