শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৯:৩২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
দর্শনা থানা পুলিশের মাদক বিরোধী অভিযানে ৩ কেজি গাঁজাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী আটক জেলা গোয়েন্দা শাখার (ডিবি), মাদক বিরোধী অভিযানে ছয়শত পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার সহ আটক- ১ মানবতার কল্যাণ ফাউন্ডেশন রংপুর বিভাগের মিলনমেলা-২০২১ এক সময় তারকা সংকট দেখা দিলে এদেশে কাজ করতে এসেছেন মুনমুন সেন, ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তসহ আরও অনেক নায়িকারা চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় পাখি ভ্যান উল্টে নিহত ১ আহত ২ মণিরামপুর থানা পুলিশের অভিযানে ১২ জন ওয়ারেন্ট ভূক্ত আসামি ও ১৫ পিচ মাদকদ্রব্য ইয়াবা ট্যাবলেট সহ একজন আটক চলচ্চিত্রশিল্প কোনো সংকটই কাটিয়ে উঠতে পারছে না মোরেলগঞ্জে ঘেরের ভেড়িতে করলা চাষে লাভবান কৃষকের মুখে মিষ্টি হাসি আমি যে তোর — আলমডাঙ্গায় আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভায় উপজেলা চেয়ারম্যান আইয়ুব হোসেন।যে কোন সময়ের চেয়ে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভাল

চুয়াডাঙ্গায় বোরো ধান ও চাল সংগ্রহ অভিযান

Reporter Name / ১০৮ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৯:৩২ অপরাহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ চুয়াডাঙ্গায় বোরো ধান ও চাল সংগ্রহ অভিযান শুরু হয়েছে। বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় চুয়াডাঙ্গা সদর খাদ্যগুদাম প্রাঙ্গণে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার এ সংগ্রহ অভিযানের উদ্বোধন করেন।উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চুয়াডাঙ্গা জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা রেজাউল ইসলাম। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের
উপপরিচালক কৃষিবিদ আলী হাসান, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাদিকুর রহমান, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ তালহা জুবাইর মাসরুর, মার্কেটিং অফিসার সহিদুল ইসলাম প্রমুখ। আরও উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা চালকল মালিক সমিতির সভাপতি শেখ আব্দুল্লাহ, চুয়াডাঙ্গা সদর খাদ্যগুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু বকর সিদ্দিক, চুয়াডাঙ্গা সদর উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা আমিরুল ইসলাম রাসেল, কৃষক আনোয়ার হোসেন ও চুয়াডাঙ্গা সাতগাড়ির চালকল মালিক হাসানুজ্জামান।
চুয়াডাঙ্গা জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি বোরো মৌসুমে কৃষকের কাছ থেকে পাঁচ হাজার ৩১০ মেট্রিক টন ধান ও ২৩৩ টন মেট্রিক টন গম এবং চালকল মালিকদের কাছ থেকে সাত হাজার ৬০৫ মেট্রিক টন চাল কেনা
হবে। অনুষ্ঠানে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার বলেন, প্রকৃত কৃষকদের কাছ থেকে ধান কেনা হবে। কোনো কৃষক যেন ধান বেচতে এসে হয়রানির শিকার না হন, সেটা গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে। চালকল মালিকদের কাছ
থেকে কোনো খারাপ চাল কেনা হবে না। এ ব্যাপারে সতর্কতা অবলম্বন করা হবে।
চুয়াডাঙ্গা জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা রেজাউল ইসলাম বলেন, চুয়াডাঙ্গার চার উপজেলায় এ মৌসুমে কৃষকের কাছ থেকে পাঁচ হাজার ৩১০ মেট্রিক টন ধান ও ২৩৩ মেট্রিক টন গম কেনা হবে। এর মধ্যে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা থেকে
এক হাজার আট মেট্রিক টন ধান, দামুড়হুদা উপজেলা থেকে এক হাজার ৪২৮ মেট্রিক টন ধান ও ৫০ মেট্রিক টন গম, আলমডাঙ্গা উপজেলা থেকে এক হাজার ৮৪৫ মেট্রিক টন ধান ও আলমডাঙ্গা উপজেলা থেকে ১৫৯ মেট্রিক টন গম,
জীবননগর উপজেলা থেকে এক হাজার ২৯ মেট্রিক টন ধান ও জীবননগর উপজেলা থেকে ২৪ মেট্রিক টন গম সংগ্রহ করা হবে। চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার ৬০ জন চালকল মালিকের কাছ থেকে এক হাজার ১৯১ মেট্রিক টন, আলমডাঙ্গার ৪৯ চালকল মালিকের কাছ থেকে এক হাজার ৬৫০ মেট্রিক টন, দামুড়হুদা উপজেলার ৩১ চালকল মালিকের কাছ থেকে ৯৪৭ মেট্রিক টন ও জীবননগরের ৫৭ চালকল মালিকের কাছ থেকে তিন হাজার ৮১৭ মেট্রিক টন চাল সংগ্রহ করা হবে। ধান প্রতি কেজি ২৬ টাকা দরে, চাল ৩৬ টাকা দরে ও গম ২৮ টাকা কেজি দরে কেনা হবে। উল্লেখ্য, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার কৃষক আনোয়ার হোসেনের কাছ থেকে ২৫ মণ ধান ও চালকল মালিক হাসানুজ্জামানের কাছ থেকে চার টন চাল কেনার মাধ্যমে ধান- চাল কেনা শুরু হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর