সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০৬:৩৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
মুজিবনগরে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বীর মুক্তিযোদ্ধা রমজান আলীর দাফন মুজিবনগরে রাস্তার রাজা মাটিবাহী ট্রাক্টর,সড়ক যেন মরনফাঁদ গাংনীতে মুক্তিযোদ্ধাদের হয়রানী বন্ধসহ ১০ দফা দাবীতে মানববন্ধন গাংনীর চেংগাড়া গ্রামে ঐতিহ্যবাহী গ্রামীন খেলাধুলা অনুষ্ঠিত মেহেরপুরে মিনি নাইট ক্রিকেট টুর্নামেন্ট’র উদ্বোধন স্বাধীনতার মাস শুরু সিরাজদিখান নতুন ভাষানচর ফুটবল প্রিমিয়ার লিগ অনুষ্ঠিত  সুন্দরবন ম্যানগ্রোভ পক্ষ থেকে ৫ গুনি ব্যক্তিকে স্বঃস্বঃ কর্মক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য সম্মাননা প্রদান আলমডাঙ্গায় সরকারি গাছ কাটার অভিযোগ আলী মুনছুর বাবুর খুলনা বিভাগীয় কমিশনারের সাথে সাক্ষাৎ

রাজশাহী কারাগারের ৩৩ কয়েদির সাজা মওকুফ

Reporter Name / ৯১ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০৬:৩৪ পূর্বাহ্ন

জাগো দেশ,ডেস্কঃ করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে চাপ কমাতে রাজশাহী
কেন্দ্রীয় কারাগারের ৩৩ জন কয়েদির সাজা মওকুফ করে দিয়েছে সরকার। ইতোমধ্যে ১৭ জনকে কারাগার থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। রবিবার রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার গিয়াস উদ্দিন এ তথ্য নিশ্চিত
করেছেন। তিনি বলেন, ‘করোনাভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগের
বিস্তার রোধে কারাগারগুলোতে ভিড় কমাতে সরকার লঘু অপরাধে সাজাপ্রাপ্ত আসামিদের সাজা মওকুফ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এ রকম বন্দিদের তালিকা কিছুদিন আগে কারা অধিদফতর আমাদের কাছ থেকে নিয়েছিল। সারাদেশ থেকে তালিকা পাওয়ার পর প্রথম পর্যায়ে ২ হাজার ৮৮৪ জনকে ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। ’রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার জানান, প্রথম পর্যায়ে রাজশাহীর ৩৩ জন কয়েদিকে ছেড়ে
দেওয়ার জন্য শনিবার তিনি চিঠি পেয়েছেন। যাদের কারাদণ্ডের মেয়াদ এক বছর, কিন্তু ছয় মাস বা তারও বেশি সাজা খেটেছেন এ রকম কয়েদিদেরই সাজা মওকুফ করা হয়েছে। ৩৩ জনের মধ্যে শনিবার সন্ধ্যায় ১৭ জনকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। বাকিরাও চলে যাবেন দু’একদিনের মধ্যে। যে মামলায় সাজা হয়েছিল সে মামলায় তাদের আর কারাগারে যাওয়া লাগবে না। সাজা একেবারেই মওকুফ করে দেওয়া হয়েছে। কারাগারের এই কর্মকর্তা জানান, সরকার শুধুমাত্র কারাদণ্ড মওকুফ করেছে। তবে জরিমানা মওকুফ নয়। অনেকেরই মামলার রায় ঘোষণার সময় কারাদণ্ডের পাশাপাশি অর্থদণ্ড দিয়ে থাকেন আদালত। যাদের অর্থদণ্ড ছিল না তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। আর ১৬ জনের অর্থদণ্ড পরিশোধ করা নেই
বলে তারা যেতে পারছেন না। এখন ব্যাংক খোলা আছে, বন্দিদের স্বজনরা জরিমানার টাকা জমা দিলেই বাকি ১৬ জনকে ছেড়ে দেওয়া হবে। উল্লেখ্য, রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের ধারণ ক্ষমতা ১ হাজার ৪৫০ জন। কিন্তু রবিবার পর্যন্ত এই কারাগারে হাজতি এবং কয়েদি মিলিয়ে বন্দীর সংখ্যা ছিল ৩ হাজার ৬১০ জন। করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে ঝুঁকি কমাতে আরও দুই দফায় এখান
থেকে বন্দিদের মুক্তি দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে কারা কর্তৃপক্ষ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর