সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ১০:৪৮ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
নির্মাণকালেই ধসে পড়লো ১৫ কোটি টাকার সেতু পরকীয়ার জেরে কুপিয়ে নারীর আঙুল বিচ্ছিন্ন, যুবক আটক বাগেরহাট মোংলায় ওঝা সেজে চেতনানাশক খাইয়ে টাকা-স্বর্ণালংকার লুট স্বর্ণ-টাকাসহ সন্তান নিয়ে প্রবাসীর স্ত্রী উধাও! দেওয়ানগঞ্জ উপজেলায় জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে ছোট ভাই বড় ভাইকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা চুয়াডাঙ্গায় বঙ্গবন্ধু আন্তঃ উপজেলা ফুটবল টুর্নামেন্ট এর পুরষ্কার বিতরনী ও সমাপনী অনুষ্ঠানে এমপি ছেলুন জোয়ার্দার প্রথমবারের মতো মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে সরকারী গৃহ পাচ্ছে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর ৫ টি পরিবার ক্যাম্পাসে পুলিশের গাড়ি দেখলে আগুন ধরিয়ে দেবেন: নুর ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু, হাসপাতাল ভাংচুর মাগুরায় মেহগনিবাগানে হত্যার পর মরদেহে আগুন

বরগুনায় মেয়েকে গাছে বেঁধে মাকে গণধর্ষণ

Reporter Name / ১৪২ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ১০:৪৮ অপরাহ্ন

বিশেষ প্রতিনিধিঃ মাত্র ৭ বছরের মেয়েকে গাছে বেঁধে মৃত্যুর ভয় দেখিয়ে মাকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলের বরগুনার তালতলীতে এ ভয়ানক গণধর্ষণের ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী নারী বৃহস্পতিবার (৩০ এপ্রিল) দিনগত রাতে থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ গণধর্ষণের মামলা না নিয়ে ধ’র্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মামলা।নিয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত ২৩ এপ্রিল উপজেলার শুভসন্ধ্যা।সমুদ্র সৈকত এলাকায়। ভুক্তভোগী বলেন, ২৩ এপ্রিল সকাল ৮টার দিকে শ্বশুর বাড়ি পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া থেকে রওনা দিয়ে পাথরঘাটা পৌঁছান।
সেখান থেকে ট্রলারযোগে তালতলী উপজেলার নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নের শুভসন্ধ্যার তেতুলবাড়িয়া লঞ্চঘাটে সকাল ১০টার দিকে নামেন তিনি। তারপর এক মোটরসাইকেল চালকের সঙ্গে নিশানবাড়ীয়া খেয়াঘাট যাওয়ার চুক্তি করলে তাকে নিশানবাড়ীয়া খেয়াঘাট না নিয়ে জঙ্গলে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে
মোটরসাইকেলচালক মোবাইলে ডেকে আরও চারজনকে আনেন। তারপরে ওরা সবাই মিলে আমার মেয়েকে গাছের সঙ্গে বেঁধে রেখে খুনের ভয় দেখিয়ে আমাকে সকাল ১১টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত পালা’ক্রমে ধর্ষণ করে। পরবর্তীতে তারা আমাকে অজ্ঞান অবস্থায় ফেলে রেখে চলে যায়। আমার জ্ঞান ফেরার পরে স্থানীয়
লোকজনের সহায়তায় অন্য মোটরসাইকেলযোগে নিশানবাড়িয়া এসে খেয়া পার হয়ে বাড়িতে পৌঁছাই। তিনি আরও বলেন, লোকলজ্জার ভয়ে এ ব্যাপারে আমি কোথাও অভিযোগ করিনি। কিন্তু বিষয়টি ব্যাপকভাবে জানাজানি হওয়ায় আমি
থানায় এসে বিচার চাইতে বাধ্য হই। এ ঘটনায় একাধিক স্থানীয়রা জানান, মোটরসাইকেল চালক জহিরুল ১০টার দিকে ওই নারীকে শুভসন্ধ্যা সমুদ্র সৈকতের জঙ্গলের দিকে নিয়ে যায়। কিছুক্ষণ পরে এমাদুল, নজরুল, সোহাগ, সাইদুল ও জঙ্গলের দিকে যায়। বিকাল ৪টার দিকে ওই নারী রাস্তায় এসে জনসম্মুখে উক্ত ঘটনা প্রকাশ করলে তারা অন্য মোটরসাইকেলযোগে তাকে নিশানবাড়িয়া খেয়াঘাটে পাঠিয়ে দেই। এ ব্যাপারে তালতলী থানার ওসি মো. কামরুজ্জামান জানান, অভিযোগ দিতে ভুক্তভোগী নিজেই থানায় এসেছেন। তার
জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়েছে। এ ঘটনায় ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। গণধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষণ চেষ্টার মামলা নেয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে ওসি বলেন, ভুক্তভোগী নারী আমাদের কাছে ধর্ষণ চেষ্টার কথা বলেছেন, আমরা সেই মামলাই নিয়েছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর