সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০৩:০০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
মুজিবনগরে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বীর মুক্তিযোদ্ধা রমজান আলীর দাফন মুজিবনগরে রাস্তার রাজা মাটিবাহী ট্রাক্টর,সড়ক যেন মরনফাঁদ গাংনীতে মুক্তিযোদ্ধাদের হয়রানী বন্ধসহ ১০ দফা দাবীতে মানববন্ধন গাংনীর চেংগাড়া গ্রামে ঐতিহ্যবাহী গ্রামীন খেলাধুলা অনুষ্ঠিত মেহেরপুরে মিনি নাইট ক্রিকেট টুর্নামেন্ট’র উদ্বোধন স্বাধীনতার মাস শুরু সিরাজদিখান নতুন ভাষানচর ফুটবল প্রিমিয়ার লিগ অনুষ্ঠিত  সুন্দরবন ম্যানগ্রোভ পক্ষ থেকে ৫ গুনি ব্যক্তিকে স্বঃস্বঃ কর্মক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য সম্মাননা প্রদান আলমডাঙ্গায় সরকারি গাছ কাটার অভিযোগ আলী মুনছুর বাবুর খুলনা বিভাগীয় কমিশনারের সাথে সাক্ষাৎ

বাড়ি ভাড়া মওকুফ করে ভাড়াটিয়াদের খাদ্য সহায়তা দিলেন রুবেল

Reporter Name / ১৩৬ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০৩:০০ পূর্বাহ্ন

বাগেরহাট প্রতিনিধিঃ করোনা পরিস্থিতিতে বাগেরহাটের নিজ বাড়ির ভাড়াটিয়াদের বাড়ি ভাড়া মওকুফ ও ভাড়াটিয়াদের খাদ্য সহায়তা দিয়েছেন জাতীয় দলের পেসার রুবেল হোসেন। বুধবার (২২ এপ্রিল) বিকেলে রুবেল হোসেনের বড় ভাই সাগর হোসেন ভাড়াটিয়াদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্য
সহায়তা পৌঁছে দেন। এর আগে রুবেল হোসেনের পিতা মুন্সি আবুবকর
সিদ্দিক রুবেল হোসেনের পক্ষ থেকে ভাড়াটিয়াদেরকে জানিয়ে দেন, করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত তাদের ভাড়া দেওয়া লাগবে না। ভাড়াটিয়াদের কাছ থেকে মার্চ মাসের ভাড়াও নেননি রুবেল হোসেন। শুধু ভাড়াটিয়া কেন, করোনা পরিস্থিতিতে বাগেরহাট পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডে প্রায় সাড়ে চারশ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দিয়েছেন রুবেল হোসেন। করোনা পরিস্থিতিতে রুবেলের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন তার প্রতিবেশীরা। ভাড়া মওকুফ করায় খুশি হয়েছেন ভাড়াটিয়ারাও। রুবেল হোসেনের বাড়ির ভাড়াটিয়া আজাদ, শাহিদা
বেগমসহ কয়েকজন বলেন, রুবেল হোসেন ভাই আমাদের মার্চ মাসের ভাড়া নেননি। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত ভাড়া দেওয়া লাগবে না বলে
জানিয়েছেন। আমাদেরকে কিছু খাদ্য সহায়তাও দিয়েছেন। এতে আমরা খুব খুশি হয়েছি। প্রতিবেশী জাহাঙ্গীর মোল্লা বলেন, ‘রুবেল ভাই তার ভাড়াটিয়াদের ভাড়া মওকুফ করেছেন। প্রতিবেশীদের খাদ্য সহায়তা দিয়েছেন। এতে আমরা অনেক খুশি হয়েছি। রুবেল ভাইয়ের মতো এলাকার সকল বিত্তবানরা যদি এভাবে এগিয়ে আসতেন, তাহলে করোনায় কর্মহীনদের খাদ্য কষ্ট থাকত না। রুবেলের পিতা মুন্সি আবুবকর সিদ্দিক বলেন, আমার ছেলে রুবেলের নির্দেশে আমাদের ১৬ জন
ভাড়াটিয়ার কাছ থেকে ভাড়া নেওয়া বন্ধ করা হয়েছে। ভাড়াটিয়া ও প্রতিবেশী মিলে সাড়ে চারশ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়েছে। করোনা পরিস্থিতি
স্বাভাবিক না হলে এই সহায়তা অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি। এর আগে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের গড়া তহবিলে বেতনের অর্ধেক অনুদান দিয়েছেন
রুবেল। এছাড়া ব্যক্তি উদ্যোগে ঢাকায় দুস্থদের মাঝে খাদ্যসামগ্রীও বিতরণ করতে দেখা গেছে তাকে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর