সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০৭:৩৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
মুজিবনগরে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বীর মুক্তিযোদ্ধা রমজান আলীর দাফন মুজিবনগরে রাস্তার রাজা মাটিবাহী ট্রাক্টর,সড়ক যেন মরনফাঁদ গাংনীতে মুক্তিযোদ্ধাদের হয়রানী বন্ধসহ ১০ দফা দাবীতে মানববন্ধন গাংনীর চেংগাড়া গ্রামে ঐতিহ্যবাহী গ্রামীন খেলাধুলা অনুষ্ঠিত মেহেরপুরে মিনি নাইট ক্রিকেট টুর্নামেন্ট’র উদ্বোধন স্বাধীনতার মাস শুরু সিরাজদিখান নতুন ভাষানচর ফুটবল প্রিমিয়ার লিগ অনুষ্ঠিত  সুন্দরবন ম্যানগ্রোভ পক্ষ থেকে ৫ গুনি ব্যক্তিকে স্বঃস্বঃ কর্মক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য সম্মাননা প্রদান আলমডাঙ্গায় সরকারি গাছ কাটার অভিযোগ আলী মুনছুর বাবুর খুলনা বিভাগীয় কমিশনারের সাথে সাক্ষাৎ

কার্পাসডাঙ্গা ও কুড়ুলগাছি বাজারে অবাধে চলছে, আড্ডা–সরকারি নির্দেশনা না মেনে পুলিশ ও সেনাবাহিনিকে পাহারা দিচ্ছে। 

Reporter Name / ৪০৮ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০৭:৩৪ পূর্বাহ্ন

শিমুল রেজা, জাগো দেশ প্রতিবেদকঃ চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুডহুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গা ও কুড়ুলগাছি বাজারে সরকারি নির্দেশনা অমান্যকারী মানুষের দৃষ্টি পুলিশ আর সেনাবাহিনির দিকে। তাদের উপস্থিতি টের পেলেই পালাচ্ছে তারা। সামাজিক দূরত্ব রক্ষা ও জনসমাগম বন্ধে সরকারের কঠোর ভূমিকার পরও মানুষের সচেতনতার অভাবে তা কার্যকর হচ্ছে না। অবাধে চলছে, রাস্তায় আড্ডাবাজি ও চায়ের দোকানে,থাকছে সব বয়সের মানুষের আড্ডা।চায়ের দোকানের সামনের দর্জা বন্ধ করে পর্দা লাগিয়ে দেখলে মনেহবে রমজান মাস শুরু। প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ অবস্থায় শনিবার থেকে সরকার কঠোর নির্দেশনা জারি করেছে। নির্দেশনা অনুযায়ী রাস্তায় মটরসাইকেলে, অটোভ্যান, ইজিবাইক এবং মানুষের চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়েছে। একান্ত প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঘরের বাইরে বের হতে পারবে না।

এ নির্দেশ অমান্যকারীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণেরও নির্দেশ দেয়া হয়েছে। কিন্তু কে শোনে কার কথা। রাস্তায় লোকজন অবাধে চলাচল চলছে। ৫/৬ জন যাত্রী নিয়ে চলছে ইজিবাইক, অটো ভ্যানসহ বিপদজনক ভাবে বেড়েছে মোটরসাইকেল অপ্রাপ্ত বয়স্ক থেকে শুরু করে বিভিন্ন বয়সী চালকরা যার যে ধরনের মোটরসাইকেল আছে তা নিয়েই বেরিয়ে পড়েছে মহাসড়কে। সামাজিক দূরত্বের কথা চিন্তা করে গণপরিবহন বন্ধ করা হলেও মাত্র আড়াই ফুটের একটি সীটে চালকসহ গাদাগাদি করে বসে চলছে ৩ জন। এতে ভাইরাস সংক্রামিত হওয়ার প্রবল ঝুঁকি রয়েছে। আর অদক্ষ শত শত চালক, মোটরবাইকে এক সিটে তিন জনের ভ্রমণে মহাসড়কের কার্পাসডাঙ্গা, কুড়ুলগাছি এলাকায় ঘুরাঘুরি করেছে প্রতিদিনিই

এক সাথে একাধিক লোক দাঁড়িয়ে গল্প, আড্ডাবাজি চলছে সমানতালে। সামাজিক দূরত্ব রক্ষা হচ্ছে না কুড়ুলগাছি বাজারসহ এলাকার পাড়া মহল্লায় গড়ে ওঠা দোকান গুলোতে আগের মতোই ভিড় হচ্ছে। মেইন রোডের বাইরে সব ধরনের দোকানে বেচাকেনা চলছে। মানুষ দূরত্ব রক্ষা ও সরকারি নির্দেশনা না মেনে পুলিশ ও সেনাবাহিনিকে পাহারা দিচ্ছে। কখন কোন রাস্তায় পুলিশ ও সেনাবাহিনি প্রবেশ করে সেদিকেই তাদের দৃষ্টি। তাদের উপস্থিতি টের পেলেই রাস্তা বাজার ফাঁকা হয়ে যাচ্ছে। পালিয়ে যাচ্ছে। কিছুক্ষণের জন্যে করোনার ভয়াবহতা ও সরকারি নির্দেশনার আলামত দেখা যাচ্ছে। পরক্ষণে যথা পূর্বং তথা পরং অবস্থা। অবশ্য, করোনা ভাইরাসরোধে সরকারি নির্দেশনা কার্যকরে পুলিশ ও সেনাবাহিনি কঠোর ভূমিকা পালন, তারা একেকটি এলাকায় বহুবার টহল দিচ্ছে এবং জরিমানা ও লাঠি চার্জ করছে। জনবল সংকটের কারণে তাদের পক্ষে এক এলাকায় সার্বক্ষণিক অবস্থান করা সম্ভব হচ্ছে না। এ সুযোগটিই গ্রহণ করছে অসচেতন মানুষ গুলো।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর