বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:১৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
শত শত সৌদি প্রবাসীর ভিসার মেয়াদ শেষ হচ্ছে আজ ঝিনাইদহে বিপুল পরিমান মাদকদ্রব্য ধ্বংস শৈলকুপায় মাছ ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে নগদ টাকা ছিনতাই, হাসপাতালে ভর্তি কোটচাঁদপুরে জাতীয় কন্যাশিশু দিবস ২০২০ পালিত ২০২০ সালে যশোর জেলায় বিভাগীয় পদোন্নতি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী অধস্তন পুলিশ কর্মচারীদের আইন বিষয়ক প্রশিক্ষণ ক্লাস শুরু নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী ওসির সহযোগীতায় দোকান পেলেন প্রতিবন্ধী আবদুল কুদ্দুস ঢাকার চলচ্চিত্রে শ্রেণী সংগ্রামের প্রতিভূ ৩ নারী চরিত্র – জয়গুন, নবিতুন, গোলাপী যশোরে পুলিশের বিশেষ অভিযানে ১৫০ বোতল ফেনসিডিল ও একটি ইজিবাইক সহ দুই জন মাদক ব্যবসায়ী আটক জীবননগরের হাসাদাহ ইউনিয়নে ৮ নম্বর বিট পুলিশিং কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে দামুড়হুদা মডেল থানা পুলিশের পৃথক অভিযানে জিআর ও টিএনজিআর গ্রেফতারী পরোয়ানা ভুক্ত তিন জন আসামি আটক

চুয়াডাঙ্গায় শাশুড়িকে হত্যার পর গোপনে লাশ দাফনের চেষ্টা দুই পুত্রবধূর

Reporter Name / ১০৫৬ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:১৬ অপরাহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলায় বৃদ্ধা শাশুড়িকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে দুই পুত্রবধূর বিরুদ্ধে। সোমবার রাতে উপজেলার পল্লী রায়সা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সফুরা খাতুন (৬৫) ওই গ্রামের মৃত হবিবুর রহমানের স্ত্রী। এ ঘটনায় দুই পুত্রবধূ রিজিয়া খাতুন ও রেশমা খাতুনকে আটক করেছে পুলিশ। তবে দুই পুত্রবধূ হত্যার কথা অস্বীকার করে বলেছেন, শাশুড়ি ঘরে উঠতে গিয়ে পড়ে মারা গেছেন। মরদেহ উদ্ধার করে হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। পুলিশি তদন্ত শুরু হয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, সোমবার রাত ১০টার দিকে শাশুড়ি মারা গেছেন বলে দুই পুত্রবধূ প্রচার করতে থাকেন। প্রতিবেশীদের সন্দেহ হলে টের পেয়ে স্থানীয় তিয়রবিলা ক্যাম্প পুলিশে খবর দেয়। মঙ্গলবার সকালে থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। এলাকাবাসীর অভিযোগ, দুই পুত্রবধূ তাদের বৃদ্ধা শাশুড়ি সফুরা খাতুনকে সব সময় অবহেলার চোখে দেখতেন। বড় পুত্রবধূ রিজিয়া খাতুন সোমবার সন্ধ্যায় রুটি তৈরির বেলুন দিয়ে শাশুড়ির মাথায় আঘাত করলে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়। এসময় তাকে স্থানীয় পল্লী চিকিৎসক সুজনের কাছে চিকিৎসা দেয়া হয়। পরে রাত ১০টার দিকে বৃদ্ধা সফুরা মারা যান। তাকে গোপনে দাফনের চেষ্টা করা হলে প্রতিবেশীরা পুলিশে খবর দেয়। সকালে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। রিজিয়া খাতুন ও রেশমা খাতুনকে আটক করা হয়। এদিকে সোমবার বেলা ১১টার দিকে দুই পুত্রবধূকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। তারা হত্যার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন, ‘শাশুড়ি একা একঘরে থাকতেন। সেখান থেকে পড়ে মারা গেছেন।’ মঙ্গলবার দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. কলিমুল্লাহ। তিনি জাগো দেশকে বলেন, প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে বৃদ্ধা সফুরা খাতুনকে পুত্রবধূরা হত্যা করেছে। তাদের আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। পুলিশি তদন্তও শুরু হয়েছে। তবে ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন হাতে পেলেই বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর