রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০২:৩৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
“শারীরিক প্রতিবন্ধী শিশু মোছাঃ রাফিয়া খাতুন (১২) কে হুইল চেয়ার প্রদান করলেন পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর পুনরায় চালু হলো উথলী রেলস্টেশন সংলগ্ন উথলী বাজারের সাপ্তাহিক হাট ঝর্ণা প্রহর ——কমল খোন্দকার বাড়ী বাড়ী কুমড়ো বড়ির ধুম দর্শনা থানা পুলিশের মাদক বিরোধী অভিযানে ৩০০শত বোতল ফেন্সিডিলসহ ২ জন আটক আলমডাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদপ্রার্থী মতিয়ার রহমান ফারুকঃ আমি নির্বাচিত হলেঅবহেলিত মহিলাদের পাশে দাড়িয়ে সেবা করে যাবো ইউটিউব ভিত্তিক চ্যানেল এসএফটিভির সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতির পদ থেকে শাহ আলম মন্টুর পদত্যাগ আলমডাঙ্গায় ৮ দলের ব‍্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতা উদ্বোধন করলেন পৌর মেয়র হাসান কাদির গনু জীবননগর ৫৫ পিস ইয়বাসহ মাদক ব্যবসায়ী নাজমুল আটক বিষ্ণুপুর দারুল উলুম কাওমী মাদরাসার উদ্যোগে ১০ ম বার্ষিক তাফসীরুল কুরআন মাহফিলে হাজার হাজার মুসল্লীর ঢল

আজ পবিত্র শবে বরাত সবাইকে সেহরি খাওয়া সুন্নত ও সওয়াব কাজ টা করার অনুরোধ রইলো

Reporter Name / ২৬০ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০২:৩৬ অপরাহ্ন

জাগো দেশ, ডেস্কঃ ধর্ম ও জীবন, আজ পবিত্র শবে বরাত জাগো দেশ এর পক্ষ থেকে সবাইকে রোজার জন্য সেহরি খাওয়া সুন্নত ও সওয়াবের কাজ। অথচ আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা সময় মতো সেহরি খান না। আবার অনেকেই আছেন যারা সেহরি খাওয়াকে খুব একটা গুরুত্বের চোখে দেখেন না। কিন্তু এটা মোটেই ঠিক না। সেহরি খাওয়ার বিষয়ে বিশ্বনবী হজরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন, ‘তোমরা সেহরি খাবে, এতে অনেক বরকত আছে।’ এছাড়াও- ১. পেট পুরে সেহরি খাওয়া জরুরি নয়। দুই বা এক লোকমা অথবা খেজুরের টুকরা কিংবা দুই/চার দানা খেলেও যথেষ্ট। ২. সুবহে সাদিকের পূর্বে রাতের শেষভাগে সেহরি খাওয়া মুস্তাহাব।

৩. যদি সেহরি খেতে বিলম্ব হয়ে যায় এবং প্রবল ধারণা হয় যে, ভোর হওয়ার পর কিছু পানাহার করেছেন, তবে এ অবস্থায় সন্ধ্যা পর্যন্ত পানাহার ত্যাগ করা এবং পরে ওই রোজা কাজা করা ওয়াজিব। জেনে রাখা ভালো- সেহরি খাওয়া সুন্নত। পেটে ক্ষুধা না থাকলে দু-একটি খেজুর খেয়ে নেয়া উত্তম অথবা অন্য কোনো খাবার খেয়ে নেবেন। (হেদায়া : খ. ১, পৃ. ১৮৬) বিলম্বে সেহরি খাওয়া উত্তম। আগে খাওয়া হয়ে গেলে শেষ সময়ে কিছু চা বা পানি পান করলেও সেহরির ফজিলত
অর্জিত হবে। (হেদায়া : খ. ১, পৃ. ১৮৬) সন্দেহ হয়, এমন সময় সেহরি খাওয়া মাকরুহ। (আলমগিরি : খ. ১, পৃ. ২০১) সঠিক ক্যালেন্ডারে সুবহে সাদিকের যে সময় দেয়া থাকে, তার দু-চার মিনিট আগে খানা বন্ধ করে দেবে। এক-দু মিনিট
আগে-পিছে হলে রোজা হয়ে যাবে, তবে ১০ মিনিট পর খাওয়ার দ্বারা রোজা হবে না। (আপকে মাসায়েল : খ. ৩, পৃ. ২০১) কিন্তু মনে রাখতে হবে, শুধু ক্যালেন্ডারের ওপর নির্ভর করা উচিত নয়। কেননা অনেক সময় তাতে ভুলও হয়ে থাকে, তাই এ ব্যাপারে সতর্ক হওয়া দরকার। নিদ্রার কারণে সেহরি না খেতে পারলেও রোজা রাখতে হবে। সেহেরি না খেতে পারায় রোজা না রাখা অত্যন্ত পাপ। (বেহেস্তি জেওর : পৃ. ৩৫৩)


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর