সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১০:১২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
আসন্ন আলমডাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি পৌর মেয়র হাসান কাদির গনুর পথসভা ও নির্বাচনী গণসংযোগ অব‍্যাহত আলমডাঙ্গায় আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের বর্ষ পূর্তি উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত চুয়াডাঙ্গায় ইট তৈরীর উপকরণের দাম বৃদ্ধি পেলেও বৃদ্ধি পায়নি ইটের দাম দেশে ফিরলেন ভারতে পাচার হওয়া চার বাংলাদেশি তরুণী সাতক্ষীরার দেবনগরে পল্লী সমাজের সম্প্রীতির মেলা গলাচিপায় ইপিজেড’র দাবিতে ১০ হাজার লোকের মানববন্ধন বাগেরহাট তিন মাসের শিশু হত্যায় ৩ জনের যাবজ্জীবন মেডিকেল শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা, গ্রেফতার ৪ পুলিশ সুপারের কাছে অসহায় মানুষের জন্য পাচঁশত কম্বল দিলেন ড. যশোদা জীবন দেবনাথ কিশোরগঞ্জে সিএনজির আগুনে পুড়ে মা-মেয়ে আহত

চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন’র ৭৪ তম জন্মদিন

Reporter Name / ২৩৬ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১০:১২ পূর্বাহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক : ১৫ মার্চ চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের এমপি জাতীয় সাংসদ সদ্যস সাবেক হুইপ চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ ৭১র’ রণাঙ্গনের মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দারের ৭৫তম জন্মবার্ষিকী আজ। ১৫ মার্চ ১৯৪৬ সালের এই দিনে পৃথিবীতে এসেছিল জোয়ার্দ্দার পরিবারে। সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন ছাত্রজীবন থেকেই ছাত্রলীগের রাজনীতিতেই তার হাতে খড়ি। তিনি চুয়াডাঙ্গা মহাকুমার পূর্ব পাকিস্তান ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন। তিনি ৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে স্বাধীন দেশের জন্য বঙ্গবন্ধুর ডাকে যুদ্ধে যান। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন ছিলেন যুবলীগনেতা। মুক্তিযুদ্ধের সময় তৎকালীন যুবলীগনেতা ছেলুন জোয়ার্দ্দার চুয়াডাঙ্গার যুবসমাজ ও ছাত্রসমাজকে একত্রিত করে মুক্তিযুদ্ধের গেরিলা ট্রেনিং নিয়ে পাক হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে চুয়াডাঙ্গাকে শত্রুমুক্ত করেন। ১৯৭৩ সালে বাংলদেশ আওয়ামী যুবলীগ প্রতিষ্ঠা হলে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শেখ ফজলুল হক মনি চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হিসেবে বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুনকে সভাপতি হিসেবে নাম ঘোষণা করেন।১৯৭৯ সালে চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগ এর সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।১৯৭৯ সাল থেকে ২০০৪ সাল পযন্ত তিনি চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।২০০৪ সাল থেকে অদ্যবধি চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগ এর সভাপতির দায়িত্বে আছেন। দীর্ঘ ২দশক চুয়াডাঙ্গা মহাকুমা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। আবুল হোসেন স্মৃতি গ্রন্থগারের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন।বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন ২০০৮ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।২০১৪
সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে পুনরায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলে
জাতীয় সংসদে হুইপ নির্বাচিত হন।২০১৯ সালের জাতীয় সংসদ নির্নাচনে তৃতীয়
বারের মত সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। তিনি চুয়াডাঙ্গা, কুষ্টিয়া, মেহেরপুর ঝিনাইদহসহ খুলনা বিভাগের শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষার জন্য খুলনা বিভাগের প্রথম বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় ফার্স্ট ক্যাপিটাল ইউনির্ভাসিটি প্রতিষ্ঠা করেন।
তিনি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর চুয়াডাঙ্গা গ্রামীণ যোগাযোগ ব্যবস্থা
রাস্তা, স্কুল-কলেজ, বিদ্যুৎসহ আর্থ সামাজিক ব্যবস্থার উন্নয়ন করেছেন। সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এর পিতার নাম মরহুম সিরাজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার, মাতা মরহুম আছিয়া খাতুন।স্ত্রী আক্তারী জোয়ার্দ্দার মালা, একমাত্র কন্যা তাবসিনা জান্নাত প্রথমা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর