বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১১:৩৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
উদ্ভাবনে উৎসাহ দিতে ‘বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট’ মেধাকে কাজে লাগাতে সরকারি কর্মচারীদের প্রতি আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ভুয়া অনলাইনের বিরুদ্ধে শিগগিরই ব্যবস্থা:তথ্যমন্ত্রী দোয়ারায় প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে বাড়ির কেয়ারটেকারকে খুন মাধবপুরে মাস্ক না পরায় ৫ জনকে জরিমানা জামালপুরে র‌্যাবের অভিযান, ৮ জুয়ারিকে আটক করে জরিমানা ভালুকায় বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে কর্ম বিরতি ময়মনসিংহের ফুলপুরে মাস্ক না পড়ায় ভ্রাম্যমান আদালতের ২২ জনকে জরিমানা সালিশে ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যা, বিচার চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন বাড়ির টিন কেটে বাবাকে হত্যা, রক্তমাখা লুঙ্গি পরেই পালাল ছেলে

নাটুদাহ ও নতিপোতা ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে সকল প্রার্থী বৈধ ঘোষনা:আ:লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীতে বিপাকে নৌকার প্রার্থীরা অভিমত নির্বাচন বিশ্লেষকদের

Reporter Name / ২৭৫ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১১:৩৬ অপরাহ্ন

মেহেদী হাসান মিলন ও আব্দুল্লাহ কার্পাসডাঙ্গা প্রতিবেদকঃ:দামুড়হুদার নতিপোতা ও নাটুদহ ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান ও মেম্বার পদপ্রার্থীদের দাখিলকৃত মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করা হয়েছে। গত রোববার রিটার্নিং অফিসার এমএজি মোস্তফা ফেরদৌস প্রার্থীদের উপস্থিতিতে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই কাজ সম্পন্ন করেন। দিনব্যাপি যাচাই-বাছাই শেষে সকল প্রার্থীকেই বৈধ ঘোষনা করা হয়। উল্লেখ্য, নতিপোতা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী নতিপোতা ইউপির বর্তমান চেয়ারম্যান নতিপোতার সন্তান আজিজুল হক আজিজ, বিএনপি মনোনিত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী দামুড়হুদা থানা বিএনপির সাবেক সভাপতি হোগলডাঙ্গার সন্তান মনিরুজ্জামান মনির এবং ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনিত হাতপাখা প্রতীকের প্রার্থী নতিপোতা গ্রামের মোশারফ হোসেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আওয়ামী লীগ নেতা হোগলডাঙ্গার সন্তান হাজি রবিউল হাসান এবং আ.লীগ নেতা ইউপি সদস্য কালিয়াবকরি গ্রামের সন্তান ইয়ামিন আলী এই ৫ জন চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।

এ ছাড়া নাটুদহ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী চারুলিয়া গ্রামের সন্তান বর্তমান চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফি, বিএনপি মনোনিত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী নাটুদহ ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জগন্নাথপুর গ্রামের সন্তান অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক আমির হোসেন মাস্টার, স্বতন্ত্র প্রার্থী আওয়ামী লীগ নেতা জগন্নাথপুর গ্রামের গ্রামের সন্তান ইয়াচনবী, একই গ্রামের সন্তান আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল মালেক, আওয়ামী লীগ নেতা চন্দ্রবাস গ্রামের সন্তান আব্দুল হালিম, একই গ্রামের সন্তান বিএনপি নেতা ফজলুল হক, চন্দ্রবাস গ্রামের সন্তান রেজাউল হক এবং চারুলিয়া গ্রামের সন্তান আমিনুল ইসলাম এই ৮ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।নাটুদাহ ও নতিপোতা ইউনিয়নে আ:লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী থাকায় বিপাকে পড়েছেন নৌকার প্রার্থীরা এমনটাই অভিমত নির্বাচন বিশ্লেষকদের। নাটুদাহ ও নতিপোতা ইউনিয়নের আ:লীগের অনেক নেতাকর্মী জানান স্থানীয় এ নির্বাচনে দলীয় প্রতিকের পাশাপাশি প্রার্থীর ব্যাক্তিগত ও রাজনৈতিক ইমেজ কাজ করবে।শুধু মাত্র প্রতিক পেলেই সবাই ঝাঁপিয়ে পড়ে কাজ করবে তা না।তাছাড়াও বিগত দিনের বিভিন্ন নির্বাচনে আ:লীগের নেতা কর্মীরা বিদ্রোহী প্রার্থীকে যোগ্য মনে করে তার পক্ষে কাজ করে জয়লাভ করিয়েছেন।যার কারনে এ নির্বাচনেও সে ধারাও অব্যাহত থাকবে।

যার কারনে অনেক আ:লীগের কর্মী সমর্থকই নৌকার প্রার্থীর পক্ষে খুব সহজে ভোটের মাঠে নামবেন না।আবার অনেক নেতাই তাদের কর্মীদের প্রতিকের কথা বলেও নির্বাচনী মাঠে কাজ করাতে পারবেন না বলে অভিমত অনেকের।নাম না প্রকাশ করার শর্তে নাটুদাহ ও নতিপোতা ইউনিয়ন আ:লীগের বেশ কয়েকজন কর্মী সমর্থক জানান যারা বিগত দিনে নৌকার বিপক্ষে কাজ করে নিজে নৌকা নিয়ে মাঠে নেমেছেন।অতীতের নির্বাচনে বলেছেন এ নৌকা সে নৌকা না তেমন প্রার্থীকে ভোট দেবেন না।তবে যে প্রার্থী নৌকার প্রকৃত কান্ডারী। প্রতিকের সাথে বেঈমানি করেন নি তার বিজয় নিশ্চিতে ঝাঁপিয়ে পড়বেন বলেও জানান তারা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর